পর” স্পা

বে রাঠোর

ভ্রীতিহানসিক নাটক

শ্রীক্ষীরোদপ্রসাদ বিষ্ভাবিনোদ এম, এ, প্রণীত

মিনার্ডভ! থিয়েটারে প্রথম অভিনীত শনিবার, ২৩শে তার, ১৩২৪ সাল

&

মূল্য পাঁচ সিকা মাত্র।

গ্রকাশক-.প্রীগুরুদাস চট্টোপাধ্যায় ২*১ নং কর্ণওয়াল স্রীট, কলিকাতা

৯৩০ বং শসা

পার বরাত তেরে ওল কলিকাতা ২১ নং নন্দকুমার চৌধুরীর দ্বিতীয় লেন হইতে কালিকা-যন্ত্রে

শ্রশরচন্দ্রচত্রবর্তী কর্তৃক মুদ্রিত

নাট্রোলিখিত ব্যক্তিগণ

পুরু শন পল রি হু যৌজাদার। রঙ্গলাল রে রি এর ভ্রাতা। ব্রজনাথ রঃ - দেওয়ান গজানন রা ভৃত্য। আ্লেমান রি পাঠান উজীর। জুনিদ 58 পাঠান আমীর। রতিলাল ওরফে সাবাজ..- ... নন্দলালের পিতা জৈন্দ্দীন ৪৪ ৪৪4৪5-58- পুভ্র। সহ্বৎ যে সহচর। মোনাইম রর মোগল স্থবেদার | টাডরমল্ল রঃ ... মোগল সেনাপতি : মুদ্া খা রঃ *.*.. পাঠান জায়গীরদ্রার কালু পাইক সর্দার ভোলাই রে টি এঁ পুত্র।

পাইকগণ পাঠানগণ, সরদার, টিন্যগণ। জ্ী।

ভুবনেশ্বরী রি ... নন্দলালের স্ত্রী কলি বেগম ঠা ..*... সুলেমানের বস্তা

তোলাইন্বের মাতা? বিঃ গ্রাম্য নারীগণ ইত্যাদ্ি।

নিবেদন।

বর্তমান আইনে বাধ্য হইয়া সময়-সংক্ষেপের জন্য এই পুস্তকের কোন.কোন অংশ অভিনয়ে পরিবর্জিত হইয়াছে।

পা নিন শত 1181 2৯ প্রথম অক /4.95814১১ 2 ৫৪ ৬.১.” ৫৮৮ / রা » ৪1211 5 পুঠি ছাসিরিনাি কালি চা নি বে লাশ ্া ।. মি কি ডে ছি রুনা 85৮ বা 6১৮ ২৯৬৮ 82২ ৮০ ০০ কপ

তোলাই। তাই ছোটবাবুঃ তুমি যে আমাদের অবাক্‌ কঃরে দিলে। চষ্লিশ পঞ্শজন পাঠানের হাত থেকে একজন আওরভংকে .: এক ছিনিয়ে আন্লে !

রঙ্গ। সুখ্যাতি ষা করবার পরে করিস্। শেষরক্ষা না করতে পারলে ছিনিয়ে আনা মিছে। তা বুঝেছিস্?

তোলাই। তা! খুব বুঝেছি। তবে কি জান ছোটবাবু, সে পরের কথা।পরে। এখন যা মরদের কাজ করেছ, তার জন্য তারিফ. করব না? শুধুহাতে একদিকে একা! তুমি, আর লাঠিহাতে একদিকে পধ্ণশজন জোয়াম পাঠান। কি করে তাদের মোহড়৷ নিলে ছোটবাবু ?

রঙ্দ। আমি ফেতোর বাপের সাক্রেদরে হতভাগা! ! |

ভোলাই। আমিওত আমার বাপের সাক্রেদ। আমি পারতুম না? লাঠিহাতে বড় জোর দ্বুশজন পাঠানের মোহড়া! নিতে গারি। বাঁবাও কি পারে ?

২৭. | বঙ্গে রাগের রঙ্গ। কথা বলিসূনিরে হতভাগ! ! তোর আমার নন্নন কানুসার্ার না পারে কি? _. ভোলাই। মিথ্যা সুখ্যাতি করব কেন ছোট যা খাট, তাই বলব। বাবা আমার পালোয়ান বটে। অনেক অসম্ভবকে সম্ভব করেছে। কিন্তু পঞ্চাশজন পালোয়ান পাঠান, তাদের সঙ্গে এক! লড়াই ক'রে জেতা! মিছে কইব কেন, আমার বাবাও পাঁরতো। না?

কালু পাইকের প্রবেশ

কানু। ঠিক বলেছিস্‌ ভোলা তোলাই কেমন বাবাঃ ঠিক বলেছি না? .. »কালু। ঠিক বলেছিস্‌। ছোটবাবু অভ্ভূত কীত্ডি দেখিয়ে দিলে। -আমি'নাড়ালে দাঁড়িয়ে দাড়িয়ে দেখেছি। ঠিক বলেছিস্। তবে একটা কথা বলতে ভুলে গেছিস্‌। তোর বাবা পারেনা বলছিস্‌ কি ভোলা? আমি বলছি তোর বাবার বাবাও পারত না। যখন করিমর্থীর লাঠি ঘোরানোর ভিতর বিছ্যুতের মত চুকে, ছোটবাবু তার কোমর ধ'রে ভাঙ্গার গড়ানে থেকে ভাটার মত গড়িয়ে দিলে, তখন আমি একেবারে অবাক্‌ হয়ে গিছনুম এমন হততন্ব হয়েহিলুম যে, ছোটবাবুর সাহায্যে ষে যাব, তাও পারিনি বুঝি ছোট বাবুতে পীরসাহেবের মৃত্তি দেখে আমি চোক্‌ বুজে ফেলেছিনুম ! যখন : চোৌক চাইলুষ, তখন দেখি পাল্কী ফেলে সব বেট। পাঠান পালাচ্ছে। ভোলাই। করিম্‌ থার কি হল? কালু। মল” আবার কি হবে? সে লাখির ঠেলায় বাঘভাঙ্গার অত উঁচু থেকে দে পড়েছে, পাথরের জান হ'লেও গুঁড়িয়ে যায়,

বনে রূঠৌর

সে ্ি খার বারে! আমি নিজেই বেটাকে কাধে ক'য়ে কাসাইয়ের 'কুজাতে ভালিয়ে দিয়ে এলুম | রে সেকি আমি করেছি ওল্তাদ? _ কাণ্ু। তবে রে করেছে ছোটবাবু?

রঙ্গ পীরসাফর্দ্দী করেছেন। যখন পাক্কীর জা থেকে ভ্রীলোকের কণ্ঠে বলৃতে শুননুম--এ আল্লা! আওরৎ কি ইজ্জত রাখনেওয়ালা আদমি হিয়। কোই নেহি স্থায়--তখন বুঝলুঃ্ন ুদ্বার্থী কোনও স্ত্রীলোককে জোর করে ধরে নিয়ে যাচ্ছে! মনে হতেই আর স্থির থাকৃতে পারলুম না। তারপর তোমার সঙ্গেকি কথা হয়েছিল, তুমি জান। তুমি যখন বল্‌লে এক! অত গুণডাঁকে হারিয়ে দেওয়া অসম্ভব, তখন বুঝলুম, এরূপ অবস্থায় এক পীরসাহেব ভিন্ন আর কেউ সে স্ত্রীলোকৃকে গুগাদের হাতথেকে রক্ষা করতে পারবে না। এই মনে হতেই, পীরসাহেবকে ম্মরণ ক'রে নী পু

ভারপর কি হয়েছে আমি জানি ন|। .. কালু। তোমাকে আর জানতে হবে না। আমি সব জেনে? নিয়েছি। সাকর্দীপাহেব যার্দ এই কাজ করে থাকেন? তা হ'লে তুমিই সেই হজরত সাফরৃদী ; আর আমি তোমার গোলাম।

রঙ্গ কথা বলতে নেই-_সেলাম, সেলাম-তুমি যে আমার ওলা !.

কালু। তোমার মত সাক্রেদ্‌ পেয়ে আমার ওস্তাদী সার্থক হয়েছে। আমি ধন্ত।

রঙ্গ। তারপর? মুদ্দাখ। আমাকে শীসিয়ে গেছে।

কানু। তারপর আবার বিষণ? সে ঘরে গিয়ে তাদের জেনানাকে শাসাঁক"-তাঁর বাপ বুড়ো সাদীরীকে শাদাক্‌। আমি কি মিছে,

৪. | বে রাঠোর

কয়েছি ছোটবাবু! রানি তার জবান বাটন য| একবার মুখে বলেছি, তার আর নড়চড় হবে ন:। হঞ্জরৎ সাফরদীর দোহাই দিয়ে বলছি, আমরা সমস্ত পাক আজ থেকে তৌমার গোলাম।

রঙ্গ আমার সেলাম--আমাঁর সেলাম--আমার সেলাম

কানু। আমর হতভাগা! ছে ড়া, দাড়িয়ে দেখছিস কি? ছোট- ববুব পায়ে, গড়িয়ে পড়। - ভোলাই। সেকি আমি আজ পড়েছি বাবা! অনেক কালথেকে ওই চরণে পড়ে আছি |

রঙ্গ। কালু দাদা, তারপর: হ'ল-এখন বিবি সাহেবকে কোথায় রাখ! যায়? | . কালু। কেন? যতক্ষণ না তার আপনার লোক খুজে পাওয়া! যায়». ততক্ষণ তাকে বাড়ীতে নিয়ে তোমার মার কাছে রেখে দাও

রঙ্গ। তাইত মনে করেছিনুষ, কিন্তু দিনমানে তা৷ হয় না।

কালু। কেন? তয়কি? পাঠানের ভয় করছ? মনে করছ, মুদ্ধার্খী আবার বিবি সাহেবকে পথ থেকে ছিনিয়ে নেবে?

রঙ্গ। সেভয় করিনি। বিবি সাহেবের ইচ্ছ। নয়। তিনি বলেন, যা হবার তা বনের মধ্যে হয়ে গেছে। বাইরের লোকে তার লাঞ্ছনার কথা জানেনা এখন, দিনমানে লোকালয়ে গেলে লোক জানাজানি হবার সম্ভাবনা। বিবি সাহেবকে দেখে, আর তোর কথার আদব কায়দা শুনে বোধ হচ্ছে যে,তিনি কোনও আমীরের কন্ঠা। কি ক'রে যে তিনি মেদিনীপুরের জঙ্গলে এসে পড়েছেন তা বুঝতে পারছি না। তবে তিনি যে একটা বড় লোকের জেনানা, এটা আমার বিশ্বাস হয়ে গেছে। তাই আমি মনে করছি? সন্ধ্যে গর্য্যস্ত

বঙ্গে রাঠোর | ৮৫

তিনি তোমাদের ঘরে থাকুন। ০০০০৪৮০৪ মা'র কাছে নিয়ে যাব

কাু। নানার হে আরীরের বেটা

রঙ্গ। দোষক্ষি? সে কত বড় বাপের বেটী? যত বড়ই হোক্‌। ' বাংলার সুলতানের চেয়ে আর বড় নয়? যারা একদিন বাংলার মসনদ্‌ নিয়ে বাজী খেলেছে, সেই বাজীকরদের বংশধরের ঘর বিবি সাহেব একবার দেখে যাক! তা ছাড়া॥ আর কোন জায়গাতে ভিডি রেখে আমি নিশ্চিন্ত হ'তে পারব ন|।

কালু। বেশ হুজুর। পাঠাবার ব্যবস্থা তুমি কর। মিয়। সাহেবের! যদিই আসে” আমরা আগে থাকতেই তাদের খানাপিনার জোগাড় করি।

রঙ্গ। কর। যা [ কানুরগরস্থা।:.. : - ভোলাই। দিনটির টায়ার নার হুর !

রঙ্গ। কিরে ছোড়া, এখনি বার করছিস্?

ভোলাই আবার মিছে দেরি কেন-গশুতত্ত শিগ্গিরং।

রঙ্গ। ওরে বেটা, আবার সংস্কৃত ক'স দেখছি 'ষে! |

তোলাই। কইব না? আমিকিযেসে লোক- নায়েব মশার চেল1। নায়েব মশায় কথায় কথায় বলে শুভন্ত শিগ্গিরং__-শুভন্য

শিগ্গিরং। রঙ্গ। নারে, আজকে খাওয়াটা ঠিক নয়। ভোলাই। কেন?

রঙ্গ। একদ্ন আওরতের তার ঘাড়ে গড়ে গেছে, বুঝেছিস্‌?

বঙ্গে রাঠোর

ভোলাই। তা পড়ুক না, তাতে কি?

রঙ্গ। তুই বোকা, বুঝিস্‌ না। সে নিশ্চয় কোন আমীরের কন্তা। মাতাল হ'য়ে কি শেষকালে তার কাছে বে-আদবি ক'রে বসবে?

'ভোলাই। (উচ্চ হান্ত)-ছোট-বাবু! তুমি আর আমাঁকে হাসিয়োনা। এমন মদ-_ছুনিয়ায় টি যে, তোমাকে বে-আদব করতে পারে।

রঙ্গ। (দেখ বুঝে দেখ.।

ভোলাই। আমি বুঝেছি_তুমি একটু খাও। র্ুঙ্গ। একেবারে কাজ শেষ ক'রে খেলে ভাল হ'ত না? বিবি সাহেবকে তোদের ঘরে রেখে আষি। |

ভোলাই। সে আর তোমাকে যেতে হবে না। রায়বাধিনী মা আছে, সেই বেটাই নিয়ে যাবে। চৌপলে বোতলে ক'রে মেদিনী- 'এপুর থেকে তোমার জন্য বিলিতি সরাপ নিয়ে এলুম ! তুমি সরাপ একটুও মুখে না দিলে--মন মানবে কেন? যা কারদানী দেখিয়েছ, তাতে একটু না খেলে গায়ের ব্যাথা মরবে না। এর পরে আর কোনও কাঞ্জ করতে পারবে না।

রঙ্ব। তবে যা, শিগৃগির ছুটো৷ শালপাতার ঠোগা কোরে নিয়ে আয়।

ভোলাই। পেসাদ পাব?

রঙ্গ। পাবি বইকি! চারপলে বোতলের সমস্ত মদ এক! খেয়ে কি বনের ভেতর এখন গড়াগড়ি খাব? (ভোলাইয়ের প্রস্থান )-- একটু খাই। শাদা চোখে মেজান্জ ঠিক রাখতে গারব না। যে কা বাধিয়ে বসেছি, তার জের এখন কোথায়গিয়ে মেটে তার ঠিকৃকি! সাদীথার দুর্দান্ত বংশ। আমাদের প্রজাদের উপর অত্যাচার

১. ] |

করমেও-কোনও একটা কথ! বলবার যো নেই। অথচ আমাদের পক্ষথেকে যদি সামান্তও একটু ক্রুটী হয়, তা হলে তৎক্ষণাৎ দাদাকে কৈফিদ্নৎ দিতে হয়--কথায় কথায় সাধু দাদাকে ছুরাত্মাদের কাছে মাফ. চগইতে হয়। যা হক একটা হয়ে যাক।' এ. রকম ক'রে মৌজাদারী করার চেয়ে ভিক্ষে ক'রে খাওয়া ভাল। তা যা হক, এত সাবধান হনুম' দুরে দূরে রূইলুম, মাটিপানে চেয়ে পিছন ফিরে কথা কইলুম--তবু চোখোচোখি ছুয়ে: . গেল! হয়ে গেল, গেল। তাতে আর কি হয়েছে? ভাগ্যে দেখা- ছিল-_অশ্ষ্যম্পঠ্ঠা পাঠানীর মুখ--ভাগ্যে দেখাছিল- হয়ে গেল। তাতে আর কি হয়েছে ! আরে রাম, রাঁম? কথা কি ভাবতে আছে! এখন বিবি সাহেবের আত্মীয়ের হাতে তাকে দিতে পারলেই নিশিস্ত হই ।--এনেছিস্‌?.

পত্রনির্মিত পানপাত্র হস্তে ভোলাইয়ের প্রবেশ

ভোলাই। এনেছি

রঙ্গ তবে দে একটু খাই। কি বলিস্‌?

তোলাই আবার বলাবলি কি? শুভস্ত শিগ্গিরং। এর পরে কখন কি বাধ। পড়ে যাবে, তার ঠিক কি? শরীরটে একবার তাজা করে নাও। যে অদ্ভুত কাজ করেছ, বাপ.! শুনে আমি চমৃকে গেছি। করিমরখখ! পালোয়ান-_-তাকে জাহান্নমে পাঠানো! কি সহজ মেহনতের কাজ? সর্বাঙ্গের ব্যথাটা মেরে দাও। তারপর যা হবার তাই হবে। |

(রঙ্গলালের পান)

রঙ্গ। দেখ, তোলাই, এই মদটুকু খাই বলে মায়ের বড় মনকষ্ট।

৮5 বঙ্গে রাঠোর

দাদাতো-_-আমার সঙ্গে কথাই কন না। নায়েব মশাই আমাকে দেখলেই-_কপান ঢাপড়ীন। নিও দানু) তোলাই। নায়েব যোৌশার কথা ছেড়ে দাঞ্। বুড়ো কেবল দুনিয়ার কপাল চাপড়াতেই এসেছে। আর বড়বাবু পীরতুল্য লোক। তার কথা না কওয়াতে কিন আসে যায় না। তবে বড় মা'র

যে ছুঃখু$ ওইটেতেই যা ছুঃখু। তবে ছুমি যে কেন মদ খাও; তারা _ কেউ জানে না। এক জান্তে জানি'আমি।

রঙ্গ। কেন বব্দেখি?

ভোলাই। দেশের যত বেটা গুপ্াকে জব করতে। শাদা চোখে বেটাদের সুমুখে উপস্থিত হ'তে তোমার চক্ষুলজ্জা হয়, তাই চোক ছুটোকে একটু রডিন ক'রে নাও। তুমি না থাকলে, গুগাবেটাদের _“অত্যাারে আজকাল গেরস্তদের ইজ্জত রাখ! ভার হয়ে উঠত'। শাদা চোখে থাকলে তুমি কি বিবিসাহেবকে উদ্ধার করতে পারতে ?

. বঙ্গ না) তা পারতুম না; শাদা চোখে সাহস হত' না। দেখ, ভোরাই,_সুলেযানসার মৃত্যুর পরে দেশটা একরকম অরাজক হয়ে গেছে। (মগ্কপান )

ভোলাই। সেত দেখতেই পারছি হুর! (মন্তপান)

রঙ্গ। এখনকার যে বাদশা, কোনও কাজের নয়। এর আমলে সকলেই স্বস্বপ্রধান। গুগডামী করতে করতে তাদের আম্পর্ঘা1 এতদূর বেড়ে গেছে যে, আজ তার শ্বজাতির উপরেও আক্রমণ করতে ইতভ্ততঃ করেনি | দুর্দান্ত পাঠান সরদার গুলোকে শাসনে রাখতে পারে এমন লোক কেউ নেই। (মন্তপান ). . ভোলাই। তুমি আছ-- (মন্তপান )

বঙ্গে রাঠোর ১৯

রঙ্গ আমি যদি পাঠান হ'তুম; তাহ'লে থাকতুম 'বটে। এই “যে এত কও করলুম, মরিয়া হয়ে মুদ্বার্থীর আক্রমণ থেকে বিবিসাহে- 'বকে বৃক্ষা করনুম, এতে ফন হবে কি জানিম্‌? বিবিসাহেবের আত্মী- য়েরা আমাকেই হত দোষী করে বসবে। .

ভোলাই। দোষী করবে?

রঙ্গ। দোষী কর! আশ্চর্য্য নয় আপনাদের দোষ ক্ষীলন করতে পাঠান এখন যদি মিথ্যা কথা কয়, তাহ'লে পাঠান পাঠানের কাই বিশ্বাসকরবে। আমর! হাজার হলফ, ক'রে সত্য বললেও সে কা মিথ্যা ব'লে উড়িয়ে দেবে।

ভোলাই। বলকি?

রঙ্গ বাঃ! খাস! মাল এনেছিস্তরে ভোলাই?

ভোলাই। কেমন ছোটবাবু, মাল খাস! নয়?

রঙ্গ চমৎকার ! থেতে ন! খেতেই মাথা চং ক'রে উঠেছে। -

ভোলাই।. করবেনা? বিশ বোতল ঢেকে ইরা ক'রে এনেছি।

রঙ্গ দেখ, আর খাওয়! ঠিক নয়-__বিবিসাহেব আছে।

ভোলাই। থাকলেই বা; বিবিসাহেব ওত চিরকালই আছে। তুমি যতদিন বেঁচে থাকবে, ততদিন অমন কত বিবিসাহেব থাকবে তার ঠিক কি!__আর একটু খাও ছোটবাবু!_

বুঙ্গ। তুই বিবিসাহেবকে দেখেছিস্‌?

এ. : (মস্তপান ভোলাইকে দান)

ভোলাই। না ছোটবাবু! তবে, মিছে কইব কেন, দেখবার চেষ্ট। করেছিনুম।

রঙ্গ। তারপর?

১০ বঙ্গে রাঠোর

ভোলাই। যে গাছের তলায় বিবিসাহেবের পালকী, পা টিগে টিপে সেই দিকে যাচ্ছিনুম। কোথায় ছিল রায়বাধিনী রাঃ বেটা আমার মত্লব বুঝতে পেরে এক টাঙ্গী নিয়ে আমাকে তেড়ে এলো ' আমিও অমনি ছুট। থাকলেই গর্দানাটা গিছলে! আর কি!

রঙ্গ। কেমন? কেমন পাহারাদার রেখে এসেছি! বেশ করেছে ভোলাই। কে সে স্রীলোক, কার বেটী, কোথা থেকে এসেছে, এখনও কিছু জানি না। কিন্তু যখন গে ইজ্জত বজায় রাখতে আমা- দের আশ্রয় নিয়েছে, তখন আমাদের স্বন্ধে একটীও তার নিন্দার কথা কইবার না থাকে, সেটা! আমাদের দেখ! উচিত নয় কি?

ভোলাই। খুব উচিত। কাজটা আমার খুবই অন্তায় হচ্ছিল। মার জন্য সেট! আর হ'তে পেলে না। হয়েছিল কি জান হুজুর, ছেলেবেলায় আরীর কাছে পরীর গল্প শুনতুম। আঙ্গা, গৌড়ের রাদসার মহলের থাস দারোগা ছিল। আয়ীও তখন গোঁড়ে থাকৃত। আয়ী সেখানকার বাদসা আমীরের যেয়েদের রূপের কথ। বল্‌তো। বল্‌তো তারা সব এক একটা বেহেস্তের পরী। তাদের রও যেন চাদের আলে! জল খেলে জল দেখা যায়। তারা কথা কইত না যেন সারেঙে ছড়ি দ্িত। এও শুননুম নাকি আমীরের বেটী। তাই পরী দেখতে গিয়েছিনুম। গিয়ে, আরে বাপ.কি লাঞুন! !__

রঙ্গ। ঠিক বলেছে।

তোলাই। ঠিক্‌?--(মগ্পান )

রন্ব। তোর আয়ী এক বর্ণও মিছে কযুনি। (মগ্ঘপান)

ভোলাই। আরী বলত তাদের দাতগুলো যেন মুক্তোর সার। চোক ছুটো যেন শ্বেতপন্নের পাপড়ী & তাতে উমৃদা উম্দা! অলজলে নীল! বসানো।

ব্ঙ্গে রাঠোর ১১

রঙ্ঘ। ঠিক বলেছে! গলাই। তুমি তাকে দেখেছ ছোটবাবু?

রুঙ্গ। দেখবোনা, কিছুতেই দেখবোনা মনে ক'রে, কি ক'রে যে দেখে ফেল্লুম/ ভোলাই, তা আমি বলতে পারছি না।

ভোলাই। কিরকম দেখলে হুঙ্ুর--ঠিক্‌ পরী?

রঙ্গ। পরী তআর কখন দেখিনি, তা কেমন ক'রে বলব? তবে এমন সুন্দরী আমিত কখন চক্ষে দেখিনি

ভোলাই। তাহ'লে ঠিক পরী। তা ই! ছোটবাবু, পাঠানীও তোমাকে দ্েথেছে? |

রঙ্গ। কেন, একথ৷ জানবার তোর দরকার কি?

তোলাই। তুমি বলইন! শুনি।

রঙ্গ। আর বলতে হবেনা নে, আমি আর থাব না। বাদ বাকীটে তুই থেয়ে নে।

ভোলাই। আর খাবে না?

রঙ্গ না। আজকে নেশা করতে আমার কেমন ভয় করছে ।.

ভোলাই। তবে আমিও খাব না। আমারও কেমন ভর করছে।

রঙ্গ। তোর আবার ক্ষিসের জন্য ভয় হ'ল?

ভোলাই। কি জানি নেশার ঝেৌঁকে পরীবেটাকে যদ্দি ছোট মা বলেফেলি! .

রঙ্গ। বেটা! পেঁচি মাতাল !--উঠে যা।

ভোলাই। কি করি হুজুর, পেঁচি কি সাধে হই! তুমি গোলামের কাছে মনের কথ! গোপন করলে কেন? কথা খুলে বল--এখনি আশি পেঁচা হব।

( মুখ বিকৃত করণ )

১২ | বঙ্গে রাঠোর

রঙ্গ কতক্ষণ ধরে তার সঙ্গে কথাবার্তা হ'ল, মে আরু আমাকে দেখেনি ? |

ভোলাই। কথা নয়, তুমি বল চোখোচোথি হয়েছে।

রঙ্গ। যদিই হয়ে থাকে, ভাতে কি হয়েছে? রী

ভোলাই। বস্‌।

রঙ আরে মর বেটা, বস্‌ কি?

"ভোলাই.। বস্‌-বস্‌্। আবার কি! ছোট মা! এই তোমাকে মোচোরমানের সেলাম আর এই হ্্াদুর পেরণাম।

রঙ্গ। ভোল!! তুই বড় বাড়াবাড়ি আরম্ভ করলি!

ভোলাই। কিছু করিনি হুজুর? ভুমি দেখেছ তাকে; সে দেখেছে তোমাকে সে যদ্ধি পরীবেগম হয়, তা হলে তুমি পরীন্থবলতান। শরঙ্ষ। ভোলাই ! তুই সাবধান হ?। :-ভোলাই। যাকে দেখে নিরেট পুরুষ ভোল! ভুলে গেছে--সেই তোমাকে দেখেছে একটা আওরৎ__

বঙ্গ। চিরনিররানকালারি নাগ তাহ'লে রাগ করব-_ উঠে যাব।

ভোলাই। (পদধরিয়া)-_দোহাই হুর, আর বলব না। তুমি রাগ করবে! বাব মাফ.কর হুজুর ! তুমি রাগ করবে !

রঙ্গ। রকম সময়ে রকম কথা মনেও আনা পাপ তা জানিস্‌? মনে আন্লেও তার ইজ্জত হানি হয়।

তোনলাই। আর বলব না--এই নাক মন্ুছি।

রঙ্গ | সে বিপম্না, তাকে রক্ষা করতে আমর! বুক বেঁধেছি। তার সম্তরম অটুট রেখে যদি আমরা তাকে তার আত্মীয়ের কাছে পাঠাতে পারি, তবেই আমাদের শ্রম সার্থক। 44

বঙ্গে রাঠোর ১৩ |]

ভোলাই। ধেআদবি করেছিঃ বেআদবি করেছি ।* দাও, আর একটু অ/যাকে পেসাদ করে দাও।

রঙ্গ তুই মাতাল হয়ে আসল কথা ভূলে গ্েছিস্‌। নানি সে মুসলমান পু |

ভোলাই। ইস্‌! কি বলেছি! তুমি হুজুর আমার কাণ ম'লে দাও। উঃ!

রঙ্গ আরে মর! কাদতে লাগলি কেন?

ভোলাই। ছোটম! জন্মাতে না জন্মাতে কবরে গেল ! উঃ! তুমি হিন্দু আর সে মুসলমান। মাঝখানে একট! প্রকাণ্ড জাতের কথ। পাহাড়ের মত আড় হয়ে পড়েছে

রঙ্গ উঠে ধা-উঠেযা তোর মা আসছে

ভোলাই। ভ্যালা আপদ! বেটা আমাকে স্শষ্খলে কাদতেও দেবেনা দাও, পেসাদ করে দাও

রঙ্গ। আর দেরী করিসৃনি ওঠ. ওঠ.। উঠে ওই মৌতলার গিয়ে বস্গে যা। তোর মা কি বলে শুনে, আমিও সেখানে যাচ্ছি |

ভোলাই পেসাদ কোরে দাও।

রঙ্গ। আমর, বেটা আলালে।

.ভোলাই। শুভস্ত শিগ্গিরং__শুভন্য শিগৃগিরং।

রঙ্গ। (মগ্পান ভোলাইকে বোতল প্রদ্দান ) যা।

তোলাই। উঃ! তুমি হিন্দু--সে মুসলমান--উঃ!

[ ভোলাইয়ের গ্রস্থান।

ভোলাইয়ের মাতার প্রবেশ ভো-মা। উন্নুককে সেখানে, পাঠিয়েছিলেন কেন হুভুর ?

১৪ বঙ্গে রাঠোর

রঙ্গ। যে আর যাবে না বউ ! এখন খবর কি বল। বিবিসাহেবের মান হয়ে গেছে?

তো-ম11. গেছে।

রঙ্গ। তবে আর বিলম্ব করছিস কেন- নিয়ে য।

ভো-না। তুমি একবার এস ছোটবাবু।

রঙ্গ। কেন?

(তোমা ।, বিবিসাহেব তোমাকে কি বঙ্গবে। |

রঙ্গ। ত্যালা আপদ! আবার আমাক্ষে তার বলবার কি আছে? আমাদের এখনকার অবস্থার আচ তাকে একটু দিতে পারলিনি?

তভো-মা। দিয়েছিলুম | |

রঙ্গ। তাতে কি'বল্লে?

তো-মা। বললে তা হোক, একট] কথা তাকে জিজ্ঞাসা করব। .তার'উত্তর তিনি দিতে পারবেন। 1“ রঙ্গ। তুই পরিচয় জিজ্ঞাসা করেছিলি? :. ভোমা। ক'রেছিলুম। বিবি বর্লে-_যদি বল্বার দরকার হয়, বাবুসাহেবকে বলব '

রঙ্গ। কে সে, কোথাথেকে এসেছে, কোথা যাবে, সঙ্গে কে ছিল, কিছু বললে না?

ভো-ম1| কিছু না, সব তোমাকে কইবে বলেছে

রঙ্গ কি যন্ত্রণা !--চ।

[ উভয়ের প্রস্থান

বঙ্গে রাঠোর দ্বিতীস্ত্র দুস্থ বাধ কলিবেগম ঝাঁধের উপর কেশ-শুক-কার্ধ্যে নিযুক্ত নিম্নে পাইক বালকগণ

বালকগণের--গীত

তোমায় পেয়েছি পেয়েছি পেয়েছি £-_

যখন পেয়েছি ওগো চাদবদনী রাণী।

তোমায় ধরেছি ধরেছি ধরেছি-_

রাঙ্গ। পায়ে ঢেলে দিছি কোনল হৃদয় খানি . তোমায় বসিয়ে কাছে করব যতন,

নন ঢেলে দিব মনের যতন, সরল মনে করব খেল! ঘত রকম জানি। আনমনে চলে যাবে বেল! ওগো! বেলারাণী

ভোলাইয়ের মাতা রঙ্গলালের প্রবেশ

তো-ম1। বিবিসাহেব !

কলি। বাবুসাঁহেব এসেছেন? (শশব্যস্তে উত্থান )

ভো-মা। ছেলেরা একটু সরে আয়।

[ বালকগণ ভোলাইস্বের মাতার প্রস্থান।

রঙ্গ। কি জন্য তলব করেছেন বিবিসাহেব?

কলি। আপনি নিকটে আস্ন।

রঙ্গ। কি বল্বেন, ওইখান। থেকেই বলুন আমার অন্যত্র বাবার_ | ্‌ |

১৬ | বঙ্গে রাঠোর

কলি। বিশেষ প্রয়োজন হয়েছে? তা হ'ক আমি আপনাকে বেশীক্ষণ আটকে রাখবনা। (রঙ্গলালের সমীপে আগমন |

রঙ্গ। (শ্বগতঃ) এত অন্যায় হ'ল- এত অন্যায় হাল |. (প্রকাশ্তে ) বিবিসাহেব! আমি আমি- «

কলি।. আপনার কথা আমি ওই বৃদ্ধার মুখে শুনেছি। বেশ করেছেন! তাতে লঙ্জা কি? রণকয়ে বিশ্রামই হচ্ছে বিজয়ীর শ্রেষ্ঠ লাভ।'

রঙ্গ। (স্বগতঃ ) দেখিস; রঙগাল দেখি। পিছনে মেঘের ুঞধ নিয়ে প্রকাণ্ড একটা রূপের সাগর প্লেন উলে আসছে। হাসিয়া রঙ্গলাল-__সামাল রক্ষা ! চারদিক: থেকে কারা যেন লুকিয়ে লুকিয়ে দেখছেঃ তারা ধেন না তোকে মাতাল ব'লে চেঁচিয়ে ওঠে কলি। নান ক'রে উঠে ভিজে চুল শুকিয়ে নিচ্ছিনুম। ঘুতরাং আমার বেআদবী মাফ. করবেন। যিনি আমার ইজ্জত বজায় , রেখেছেন, তাঁর স্ুমুখে সঙ্কোচের একট! অভিনয় দেখানেো৷ আমি 'ভদ্রতা মনে করি না।

রঙ্গ কি জন্য আমাকে ডাকিয়েছেন বনুন।

কলি। আমার পরিচয় আপনি জান্তে চেয়েছিলেন ?

রঙ্গ। জানবার প্রয়োজন হয়েছে বিবিসাহেব !

কলি। তা আমিও বুঝেছি আপনি যতক্ষণ না আমাকে আমার কোনও িরজরজারানা পারছেন, ততক্ষণ নিশ্চিন্ত হ'তে পারছেন না। রঙ্গ। কিছুতেই পারছি না। আমি হিন্ু। আপনাদের বংশের আদব কায়দ। আমি কিছুই জানি নাঃ তার উপর আপনি ুন্মরী--

তারি সুনরী। আর আমি--

বন্ধে রাঠোর ১৭

কলি। সুন্দর--কেমন, এই কথা বলতে চাচ্ছেন ত?

রঙ্গ )না বিবিসাহেব--আপনি কথা শেষ করতে দিন।

কলি। আর শেষ করবার প্রয়োজন নেই_-আপনি য। বলবেন, আমি বুঝেছি। *

রঙ্গ। ন] বিবিসাহেব, আপনি বোঝেননি।

কলি। ' না বাবু সাহেব, আমি বুঝেছি

রঙ্গ। আমি বলছিলুম- আমি-_

কলি। অতি সুন্দর যুবাপুরুষ।

রঙ্গ না, আর আমি কথা কইব না।

কলি। আর 'আপনাকে কইতে হবে না। তারপর আমার বক্তব্য শুনুন। আপনি আমার পরিচয় যাকে তাকে দিয়ে জানতে চাচ্ছিলেন কেন? আপনি নিজে এসে জানলেইত হ'ত ।.

রঙ্গ। এসেছি--এইবারে বলুন

কলি। বলছি। কিন্তু তার আগে আপনি বনুন দেখি, দি আমার কোন আত্মীয় না থাকে?

রঙ্গ বলেন কি?

কলি। যদি না থাকে, তা হ'লে আপনি কি করবেন?

রঙ্গ। আমাকে মাতাল দেখে আপনি রহন্ত করবেন না। কথ আমি বিশ্বাস করব কেমন ক'রে?

কলি। যদির কথা-_বিশ্বীস করতে বলছি না। যদ্দি না থাকে, তা হ'লে বলুন আপনি কি করবেন? মাথা হেট ক'রে ভাববার সময় নেই। কেন না আমি অনেকক্ষণ বেহায়ার মত আপনার সম্মুখে দাড়িয়ে আছি।

রঙ্গ। কেউ নেই?

১৮ বঙ্গে রাঠোর

কলি। * আত্মীর বলে পরিচয় দিয়ে অনেকে আদতে পারে। কিন্তু প্রকৃত আত্মীয় এক পিতা ছাড়া আর কেউ নেই। | না ভুলে' গেছি রাবু সাহেব, আপনার কথাট! ভুলে গেছি-আপনি পিতা ' ছাড়া' আর কেউ নেই। |

রঙ্গ। আপনায় পিতা কোথায় আছেন বলুন।

কলি। পিতার সংবাদই যদি দিতে পারব; তাহ*লে এরূপ কথার উত্থাপন করুব কেন? আপনার দেখছি ঈরাড়াতে কষ্ট হচ্ছে আপনি বন্থুন।

রঙ্গ। ন|/বিবি সাহেব, আমার কিছু কষ্ট হয়নি। আমি বেশ ঈ্াড়িয়ে আছি, আপনি বলুন

কলি। আমি দেখছি আপনি বেশ ধ্ীড়িয়ে নেই, আপনার পা টলছে। অতি পরিশ্রমের পর আপনি একটু সরাপ খেয়েছেন ; তাতে ' লজ্জা কি? আপনি বন্থুন। হেস্ত ধারণ)-_-আমার অনুরোধ আপনি বস্থন। বসবার যোগ্য জায়গা নয়-_( ওড়না পাতিয়। )--এইতে বন্থুন।

রঙ্গ। না, নাকি করেন-কি করেন? দেখবে--ওরা দেখবে।

কলি. দেখলেইবা, আমরাত চৌর্ধযবৃত্তি করছিনি! আমার অনেক কাহিনী কিছুক্ষণ না বসলে বলতে পারব না।

রঙ্গ আপনার অতি মূল্যবান ওড়না--

কলি। এর এখন আর কোনও মূল্য নেই। -ছুরাস্্ার হস্তম্পর্শে কলক্ষিত হয়েছে। বস্ত্রও পরিত্যাগ ক'রে যদি আপনাদের স্থানের মোটা কাপড়ে আমি দেহাচ্্াদন করতে পারতুম, তা৷ হ'লে নিশ্চিন্ত হতুম।

বঙ্গে রাঠোর ১৯

রঙ্গ আপনার হুকুম অমান্য করতে পারলুম না।

কলি |] আমার অনুরোধ রক্ষা আপনার অস্থুগ্রহ। (উভয়ের উপবেশন )-_আপনি বাংলার কোনও খবর রাখেন ?

রঙ্গ। নাবিবি,সাহেব! আমি এই মেদিনীপুরের বাইবে কখন পা দিইনি

কলি। বাংলায় একজন সুলতান আছেন, জানেন ?

রঙ্গ। তা জানি। গৌড়ে একজন বাদসা থাকেন। আগে ছিলেন স্থলেমান না এখন হয়েছেন তার পুত্র দায়ুদ খা

কলি। এইত সব জানেন বাবু সাহেব?

রঙ্গ আমরা মৌজাদার কিনা, কাজেই খবরটা আমাদের রাখতে হয়।

কলি। তীর উজীরের নাম জানেন?

রঙ্গ তার নাম--তার নাম--

কলি। মুখের দিকে চাচ্ছেন কি? তার নাম কি আমার মুখে, লেখা আছে?

রঙ্গ। আপনি কি মঙ্গোলী সাহেবের কন্তা?

কলি। জানিন! জানিনা ক'রে আপনি যে অনেক জানা কথা কয়ে দিলেন বাবু সাহেব! পূর্বেই বলেছি, আপনি এখন আমার একজন আত্মীয় আত্ীয়ের কাছে আত্মগোপন পাপ। আমি 'উজীর সুলেমান মঙ্গোলীর কন্তা। উঠবেন না--উঠবেন না। পরিচয় দিয়ে আপনার কাছে আমার মর্যাদা নুতন ক'রে কিছু” বাড়ল না। অপরিচিতা বিপন্নাকে আপনি যে মর্য্যাদা দেখিয়েছেন, সেই মর্য্যাদাই আমার পক্ষে যথেষ্ট

বঙ্গ উজীর-পুত্রী !

বঙ্গে রাঠোর

কলি। 'ছিলুষ। অ?পনাকে বলতে ভূল হয়ে গেছে। এখন আর আমি উজীর-পুত্রী নই।

রঙগ। কেন? আপনার পিতা কি উদ্ীরীতে ইস্তফ! দিয়েছেন?

কলি। বুদ্ধির দৌষে উজীরী হারিয়েছেন।

রঙ্গ রাজা কি তাকে বরথান্ত করেছেন?

কলি। 'রাজা! কোথায় রাজা? বাংলায় আর রাজ৷ নেই। বাংলা এখন মোগল বাদসা আকবরের অধিকারে মোগলে গৌড় দখল করেছে।

রঙ্গ। কই একথাত শুনিনি !

কলি। আপনি কেন, প্রদেশের কেউ এখনও শোনেনি-_ মোগল এত শীঘ্র পাঠানদের পরাস্ত করেছে তবে শুনতে আর বড় বিলন্ব নেই। দায়ুদর্খ| আকবরের রণকৌশলে এত শীগ্র পরাস্ত হয়ে 'গেলেন যে, দেখতে দেখতে মোগল রাজধানী গৌড়ে এসে উপস্থিত হাল। পাঠানেরা তখন এমন বিধ্বস্ত যে, নিজের নিজের স্ত্রী কন্াকে ব্রক্ষা করবারও অবকাশ পেলে না।

রঙ্গ আপনার পিতার পরিবার ? তাদের কি হ'ল?

কলি। তাদের কথা! আর জিজ্ঞাসা করবেন না পিতার বংশের দুর্দশার কথ! এই মেদিনীপুরের জঙ্গলে বসে একজন হিন্দু আত্মীয়কে বলবার জন্ত একমাত্র অবশিষ্ট আমি আছি

রঙ্গ সকলে মরেছে; না মোগল ধ'রে নিয়ে গেছে ?

কলি। একমাত্র মা মরেছেন।

রঙ্গ। - থাক, আর বলতে হবে না। আপনার ভাই__ “কলি। ছিল। এখন নেই। মঞ্্ালী বংশের একমাত্র আমি জীবিত আছি।

বৃঙ্গে বাঠোর ₹১

রঙ্গ। তাহ'লে আপনাকে কার কাছে নিয়ে যাব বলুন

কন্তি। সেই কথাই বলব বলে আপনার ক্ষতির ব্যাঘাত 'ক'রে আপনাকে ভাকিয়ে এনেছি এইবার আমার নিবেদন শুনুন। পিতা যদি আমাধ জীবিত না থাকেন, তাহ'লে ছুনিয়ায় আমার: আপনার আর কেউ নাই। এরূপ অবস্থায়, যেখান ইজ্জত রেখে চলতে পারি; এমন কোন আশ্রয় আমাকে দেবার ব্যবুস্থা আপনি করতে পারেন? |

রঙ্গ। কতদিনের জন্য ?

কলি। যতদ্দিন বাচব !

রঙ্গ কিরূপ ভাবে থাকতে চান?

কলি। সেটা আপনি যে রকম ভাল বুঝবেন। যাতে আমার রাবার রোানিরানি জারির

রঙ্গ। তাতে আমি ভাল বুঝব কি?

কলি। বেশ, আপনি না বুঝতে চান, আমিই বুঝব। আপনি গুধু স্থানটা দেখিয়ে দেবেন। |

রঙ্গ বেগম সাহেব! আপনাকে মানের সহিত রাখতে পারি, এমন কোনও সন্তান্ত মুসলমান পরিবারের সঙ্গে আমার পরিচয় নেই।

কলি। মুসলমান ন৷ পান- হিন্দু?

রঙ্গ। সে আগে ন্/ জেনে বলতে পারি না।

কলি। আপনার বাড়ী? (রঙ্গলালের নীরবে অবস্থিতি ) ব'লে কি বিপদে ফেললুম ?

রঙ্গ যদ্দি বলি, ন!।

ক্গি। তাহ'লে, আমিঞ নিশ্চিন্ত হয়ে নিজেই নিজের ইজ্জত রক্ষা করি।

ইং বঙ্গে রাঠোর

রঙ্গ (কেমন ক'রে করবেন?

কলি। তা আপনাকে আমি বলব কেন?

রঙ্গ। একটু আগে যেমন ইজ্জত রক্ষা! করেছিলেন?

কলি। এখন দেখছি আপনি মাতাল। আপনি উঠে যান।

(দ্াড়াইলেন )

রঙ্গ। (দীড়াইয়া)-_মাতালত বরটিই বেগম সাহেব! সে কথ আপনারে বলতেই 'যাচ্ছিলুম। আপনি আমাঁকে বলতে দিলেন না। তবে-__বেআদবী মাফ. হয়, আমি দেখছিঃ আমি খেয়ে মাতাল, আর আপনি ন! থেয়ে মাতাল :

কলি। (হান্ত) বাবু সাহেব! "আমি প্যান প্যান ক'রে চোখের জল ফেল! বাঙ্গালী রমণী নই। আমিপাঠানী। (ছোর! বাহির করণ ) বুঝেছেন? ৮; বঙ্গ বুঝেছি। আমিই মাতাল বিবিসাহেব ! তবে মুদ্দা্ার

কাছে ধরা দিলেন কেন? _. কলি। অতর্কিতে ধরেছে। এক আকন্মিক বিপৎপাতে আমি কিছু হততন্ব হয়েছিলুম।

রঙ্গ তাই হবে, আমি বুঝতে পেরেছি।

কলি। বাবুসাহেব! আপনিও আমার বেআদবী মাফ.করবেন। আপনি আমাকে মুক্ত করতে গিয়ে শুধু আমাকে রক্ষা করেননি, সেই বর্ধর পাঠানকেও অপঘাত মৃত্যুথেকে রক্ষা করেছেন। যখনি তা হ'তে . আমার মর্যযাদা-নাশের সম্ভাবনা! দেখতুম, তখনি তার বুকে এই ছোরা মারতুম। তাকে মেরে নিজে মরতুম।

রঙ্গ। আমি যদি আপনার পিতার গসম্মীপে আপনাকে উপস্থিত করতে পারি?

বঙ্গে রাঠোর ২৩

কলি। কোথায় পিতা? তিনি হতাঁবশিষ্ট পাঠার্ন সৈন্য নিয়ে এখনও (প্রাণপণে শক্রকে বাধা দিচ্ছেন। বর্ধমান থেকে তীর সঙ্গে আমার ছাড়াছাড়ি।

রঙ্গ। বনে আপনি তা হ'লে কার সঙ্গে এসেছিলেন?

কলি। এক হাবসী খোজা বীর আমার রক্ষী ছিল। সে সর্প।ংধাতে মারা গেছে যে গাছের তলায় প্রথমে আমি আশ্রয় গ্রহণ করেছিলুম, সেখানে হয়ত এখনও তার মৃতদ্দেহ পড়ে আছে। অবশিষ্ট যাড়ুলি বেহার৷ আমার সঙ্গে ছিল, তারা সব দেশের। সেই ছুরাম্মার ভয়ে তারা ডুলি ফেলে পালরিয়েছে।

রঙ্গ। বেগমসাহেব! আপনার পিতার সন্ধান একবার নানিয়ে আমি কোনও সহুত্তর দিতে পারছি না।

কলি। আপনি কি বর্দমানে যাবেন?

রঙ্গ। সন্ধান করতে করতে যদি যাবার প্রয়োজন হয়, যাব. *:

কলি। এই যে বল্লেন, আমি মেদিনীপুরের বাইরে কখন পা দিইনি ?

রঙ্গ দিইনি, এইবারে দেব। .

কলি। মাথার ঠিক অবস্থায় বলছেন?

রঙ্গ। আপনার কথা শুনে আমার নেশা গুর্ঘটী গেছে।

কলি। যে কর্দিন আপনার সঙ্গে দেখা না হবে সে কদিন আমি কোথায় থাকব? |

রঙ্গ। সন্ধ্যার পর আপনাকে একবার মার কাছে নিয়ে যাব। দরিদ্র হিনদরে গৃহে মা যদি আপনাকে রাখতে সাহস করেন, তা হ'লে সেইখানেই আপনি থাকবেন। নইলে আমার পরম নুম্বৎ কতকগুলি দরিদ্র মুসলমান আছে, তারা্টপর্ণকুটীরে বাঁস করে, তাঁদের মধ্যে. এক 00555958) ;

"২৪ বঙ্গে রাঠোর

কলি।' সেখানে থাকার কি স্থৃবিধা হবে? বঙ্গ। তারা গোলামের মত আপনার সেবা করবে।: তৃবে আপ: . নার যোগ্য অশন, বসন; শয্যা-এ সব দিতে পারযে না। আপনি যেওড়নার আস্তরণ করে আমাকে বসিয়েছেন, তারা কখন চক্ষে দেখিনি হিরো দানার

কলি। কিরকম?

রঙ্গ। গৌঁডের বাদসা হুসেন সার আমল পর্য্যন্ত তার! গৌড়ে ছিল। তার! ছিল বাদসার থাস পগটন্‌। তাদের কথা অধিক বলবার সময় নেই। একটু পূর্বেঃ ইজ্জন্ত রাখতে, কারও ঘরে আপনি দাসী হয়ে থাকতে চেয়েছিলেন যদি সেখানে থাকতে চান, তা হ'লে আপনার মর্ধ্যাদা অটুট থাকবে, আমি এ্রইমাত্র আশ! দিতে পারি কলি। বর্ধমানে কবে রওনা হবেন? : * বুঙ্গ। আজ রাত্রেই। মাফের সঙ্গে আপনার একবার সাক্ষাৎ করিয়ে দেবার অপেক্ষা

কলি। এর ওপর আমার আর কোনও কথা ইবার অধিকার নেই বাবুসাহেব ! তবে আর একটা কথা আপনাকে জিজ্ঞাস! করব। পিতার সঙ্গে যদি আপনার সাক্ষাৎ হয়, তা হ'লে তাকে কি বলবেন?

রঙ্গ যা ঘটন! ঘটেছে, যেরূপ ক'রে আপনাকে পেয়েছি সব বলব।

কলি। তা বললে যে, আমাকে জনা হবেনা?

রঙ্গ। কেন? | |

কলি। পিতা আমার বড় অভিষ্কানী। আপনাকে সে কথা বলিনি। পিতা ধদি জানতে পারেন, তাঁর কন্া কতকগুলো অপরিচিত

বঙ্গে রাঠোর ২৫ যুবকের হাতে হাতে বৃক্ষচ্যুত আনারের মত লোফাধুফি হয়েছে তাহ'লে তিনি আমাকে হয়ত কন্ঠ বলেই স্বীকার করবেন না। রঙ্গ। যাবার মুখে আপনি যে আমাকে বিষম ফেরে ফেললেন। কলি। এই €য অনবগুন্ঠিত মস্তকে এক আঁচলে বসে আপনার. সঙ্গে এতক্ষণ ধ'রে বাক্যালাপ করনুম, কথাও তাহ'লে আপনি বলবেন? " রঙ্গ। যদি প্রশ্নন্ত্রে এমন অবস্থা ঘটে যে, কথা না কইলেই নয়; তাহলে মিথ্যা কইতে পারবনা নতুব! উপযাচক হয়ে আপনার সম্বন্ধে অপ্রয়োজনীয় কোনও কথার উথ্থাপন করব না। কলি। আমি যদ্দি আপনাকে সত্যগোপনে অনুরোধ করি ? রঙ্গ আমি মিথ্যা কইতে পারব না। কলি। বেশ, আপনি পিতার অনুসন্ধান করুন। রঙ্গ ওরে! এইব্ঠর তোরা বিবিসাহেবকে নিয়ে যা। বালকগণের প্রবেশ বালকগণের গীত তবে এস ঘরে এস ঘরে মোদের কুঁড়ে ঘরে বলতে কথ! সরম লাগে নিয়ে যেতে ভয় করে ভাঙ্গা ঘরে টাদের আলো, যদিন থাক তদিন ভালো, থাকবে যদিন মাথ! দিয়ে থাকব পড়ে দোরে কি আছে তা করব দান, (তবে) প্লীণ দিয়ে তোমার রাখব মান, _ শক্ত যদি ধরতে আসে করব সড়কি বেঁধা তারে মুও ছি'ড়ে গড়িয়েটদেব (তোমার ) রাজ! চরণ পরে [ সকলের প্রস্থান

হ্৬ বঙ্গে রাঠোর

ততীম্ত দুস্থ অস্তঃপুরস্থ প্রাঙ্গণ

ভুবনেশ্বরী গজানন

ভুবনে। তুই এই বিবাদটা রোধ ঝাঁরতে গারলিনি?

গজা। বিবাদ কি আমার সুমুখে হয়েছে, যে রোধ করব! .

ভুবনে।* সেত মিছামিছি কারও সঙ্গে কলহ করবার ছেলে নয়।

গজা। সে তুমি জানলে আর আমি জাননুম। অন্যেত তা. বুঝবে না। বিশেষতঃ জায়গীরদারের ছেলের সৃঙ্গে লড়াই। লোকে বুঝেও বুঝবে না। তোমার দেওরকেই.দোধী করবে করবে কেন» করছে। বড়বাবু কারও কাছে মুখ পাচ্ছেন না।

.ভুবনে। সে কোথ। গেল, জানতে পারলি ? _' গজা। তা জানতে পারলে ধরে আনতুম। কোথাও তাকে : .খুঁজে পেলুম না ঝলে মনে করলুম তিনি বাড়ী এসেছেন

ভুবনে। তাকে খুঁজে আনতে না পারলে যে, আমি নিশ্চিন্ত হ'তে পারছিন|।

গ্া। আমিও কি পারছি মা? ছোটবাবু কাউকেও ভয় কর- বার ছেলে নয়। তিনি বাড়ী আসবার হ'লে এতক্ষণ নিশ্চয় আসতেন।

ভুবনে। তাহ'লে নিশ্চয় সে বিপদে পড়েছে

গজা। বিপদে পড়েননি সে বিষয়, আমি নিশ্চিত জেনে এসেছি। |

ভুবনে। তবে সে আসছে না ফন? বেলা শেষ হয়েগেল। . সে বেশ জানেঃ সে না! খেলে তার মা জলপধ্যন্ত মুখে দেবে ন|। বিপদে

বঙ্গে রঠোর | রর

না পড়লে কখন সে আসতে এত বিলম্ব করে? সেনিশ্চয় বিপদে পড়েছে তুই ছোটবাবুকে খুঁজে নিয়ে আয়। যেখান থেকে পারিস নিয়ে আয়। যদি আদতে না চায়, জোর ক'রে ধরে আনবি। বলধি। তোমার ম৷ ফীদাকাটী করছেন। তুমি শীগৃগির বাড়ী চল। গজা। বড়বাবু এসে যদি আমায় খোঁজ করেন? ভুবনে। আমি তার জবাব দ্িহি করব। গজা। (ন্বতঃ) ধন্য মানুষের বেটা তুমি। মায়ের স্নেহকেও তুমি হার মানিয়েছ। [প্রস্থান। ভুবনে। তাইত? কি যে ঘিপদ ঘটালে, তাতো বুঝতে গারছিনা। মরণটা হয় বাচি। শ্বাশুড়ীকে জালা পোহাতে হ'লন|। শ্বশুর. কোথায় যে গেলেন, এই বাইশ বগরেও তার খোঁজ হ'ল না। মাঝখান থেকে ভোগ ভুগতে রইলুম আমি। জন্মান্তরে কত যে পাপ করেছিলুষ, তার অবধি নেই। রি? নন্দ। (নেপথ্যে) গজা! ফিরে আয়। : গ্রঙ্কা। (নেপথ্যে) আজ্ঞে আমি ছোটবাবুকে খুঁজতে যাচ্ছি। নন্দ। (নেপথ্যে) তোকে কোথাও যেতে হবে না, ফিরে আয়।

নন্দলালের প্রবেশ

ভুবনে হ্যাগা! দেখা পেলে?

নন্দ। আমর বেটা, কথ! শুনছিস না৷ কেন?

গঙ্জা। (নেপথ্যে) ,মা খুঁজতে বলেছেন।

নন্দ। বনুক, তুই ফিরে আয়! তোকে খুঁজতে হবেনা

ভুবনে। খুঁজে পেলে? * মন্দ। দেখগজা! এইবারে মার খেয়ে মরবি।

৯১ | বঙ্গে রাঠোর

তুবনে'। বলি, আমার কথায় উত্তর দিচ্ছন! কেন 1.

নন্দ। কি তোমার কথা, তা তার উত্তর দেব?

ভুবনে তাকে খুঁজে পেলে কিনা বলা

নন্দ। সে চুলোয় গেছে। এখানে কোথায় 'তাকে খু'জে পাব?

ভুবনে। আমরি ! কথার শ্রী দেখ একবার।

নন্দ। এখন দেখছি, বারের সঙ সঙ্গে হততাগারও মৃত্যু হলে ছিল ভাল ।,

ভুবনে বালাই, কি অপরাধে সেরতে যাবে?

নন্দ। অপরাধ এখনি জানতে পারবে এখন। বংশে এমন কুলাঙ্গার কোথা থেকে জন্মাল? .

ভুবনে। কেন, কুলাঙ্গার সে কিসে হ'ল? একটু-আধটু নেশা করে বলে ?-তোমার বংশে সকলেই কি তোমার মত ধর্মরাজ 'যুধিঠির জন্মেছিল? নেশ! কি আর কেউ করেনি?

নন্দ। শুধু নেশা! করলে সে আমার বাপের ঠাকুর।

ভুবনে। আর কি সে করেছে?

নন্দ। আমার মুও করেছে। লক্মীছাঁড়া হ'তে সব নষ্ট হ'ল দেখছি।

ভুবনে। দেখ? কিছু নাজেনে শুনে, মিছামিছি আমার স্ুমুখে তাকে গাল দিও না।

নন্দ। আর তুমিও--যাকে যতটুকু মমতা দেখান উচিত-_তার অতিরিক্ত মমতা! তাকে দেখিও ন1।

ভুবনে। মমতাটা কি দেখারুম ?

নন্দ। জন্মের মত তার মাথাটা খেয়ে দিয়েছ, আবার দেখাবে পর উনেছ মায়ের চেয়ে যে অধিক মমতা দেখায়-_

বঙ্গে রাঠোর ২৯.

ভুবনে। তাকে বলে ডান। তা আমি ডাইনীই ত। বলন! স্পষ্ট ক'রেই বলনা_আমি ডাইনী। তাসে কথা অত ঘোর প্যাচ কঃরে বলবার দরকার কি?

নন্দ। একদিনের জন্যও ছেড়াটাকে শাসন করতে দিলে না . তার ইহকাল পরকাল সব ন্ট করলে

ভুবনে। নষ্ট করনুম আমি ন। তুমি? তুমি কি শালন. করতে জান?

নন্দ। হয়েছে-হয়েছে-থাম।

ভুবনে। তুমি যে রকম শাসন কর্তা পুরুষ, তাতে সে যদি খারাপ হয়, সেত তোমারই দোষ : মন্দ। হয়েছে, বুঝেছি, থাম। গজ! আসছে।

ভুবনে। আন্ুক না গজা। আমি কি কাঁউকেও তয় ক'কে কথা বলছি। ্‌

নন্দ। আচ্ছা সমস্ত আমারই দোষ

ভুবনে। নিশ্চয়-_তা৷ আবার ঢোক গিলে বলছ কি?

গজাননের প্রবেশ

নন্দ। সে হতভাগাকে ধোজ| রেখে, যা তোকে বলি এখনি কর্‌

গজা। বল।

ভুবনে। আমার সুমুখে তাকে হতভাগা! হতভাগা! করনা।

নন্দ। এখনি একথান! পান্কী-_

ভুবনে। কিজন্য সে হততাগ! হ'তে যাবে? _ নন্দ। কি আলা, আমাকে কথা কইতে দেবে না? |

ভুবনে। ছেলে ব'লেঞতাই-_একটু আধটু নেশা ক'রে চুপ করে থাকে অন্ত ছেলে হ'লে এতদিন আরও কত কি করত।

২৩০ বঙ্গে রাঠোর

নন্দ। তাই করেছে, আর করত নয়।

ভুবনে। কি করেছে?

নন্দ। আমার মুণ্ড করেছে। সর্দিয়া থেকে আমার বাম ওঠাবার জোগাড় করেছে। যা বললুষ বুঝলি? , [ গজাননের প্রস্থান ভুবনে। ওকে এমন সময় পাল্কী ক্সানতে পাঠালে কেন? নন্দ। তোমাকে এখনি রওন! হ'তে হবে। ভুবনে। কোথায়? নন্দ। আপাততঃ তোমার বাপের বাড়ী ভূুবনে। তারপর? | নন্দ। তারপর যেমন বুঝব। ফিরিয়ে আনবার হয় ফিরিয়ে আনব। না হয় পিসের কাছে বিষুপুরে পাঠিয়ে দেব। . .. ছুবনে। পাঠানদের সঙ্গে দাঙ্গা করবে নাকি? _ নন্দ। দাঙ্গা আমাকে করতে হবে না। যা করবার পাঠান্রাই করবার ব্যবস্থা করছে। আজই হ*ক কালই হক, ছু্দিন পরেই হক, তারা আমাদের বাড়ী চড়াও হবে। ব্যাপার বরই গুরুতর সমস্ত পাঠান জোট বেঁধেছে।

ভুবনে তাদের এমন ম্খাস্তিক আক্রোশ হ'ল, কারণটা কি?

নন্দ। কারণটা এখনও বুঝতে পারছ না? তবে আর হতভাগাঁকে গাল দিচ্ছি কেন?

ভূবনে। পাঠানদের মেয়েছেলের সঙ্কে কি কোনও তামাস৷ বিজ্ধরপ করেছে?

নন্দ। বিদ্রপ কি- ছিনিয়ে এনেডে।

ভুবনে। বলকি?

বঙ্গে রাঠোর | ৩১,

নন্দ। এই তশুনছি। সমস্ত খবর এখনও পাইনি। ব্যাপারটা 'কি জানবার জন্য নায়েব মশাইকে পাঠিয়েছি।

' ভুবনে মিথ্যাকথা! তার কি এত সাহস হ'তে পারে?

নন্দ। মিথ্যা কি সত্য, নায়েব মশাই ফিরে এলেই জানতে পারব। তবে তিনি আজ রাত্রেই তোমাকে স্থানান্তরে পাঠিয়ে দেবার কথা ব'লে পাঠিয়েছেন।

ভুবনে। তোমাদের ফেলে যাব, আমার মন স্থির হবে কেন? বিশেষতঃ বোকা! ছেলেটা কোথায় রইল জানতে পারলুম না।.

নন্দ। কি করবে তোমার বরাত। যদ্দি ইজ্জত রাখতে হয়, তাহ'লে তোমাকে এখানে রাখতে সাহস করি ন!।

ভুবনে তোমরাও আমার সঙ্গে চল নাকেন?

নন্দ। ছেড়াকে পাই, তার হাত পা. বেধে তোমার কাছে. পাঠিয়ে দেব।

ভুবনে। আর তুমি!

নন্দ। আমি? তুমি কি ক্ষেপে! আমি পালিয়ে বংশের নাম ডুবিয়ে দেব?

নায়েব। (নেপথ্যে ) বড়বাবু !

নন্দ। যাই নায়েব মশাই।

নায়েব। (নেপথ্যে ) মাকে পাঠিয়েছ?

নন্দ। না।

নায়েব। (নেপথ্যে বিলম্ব করন]

নন্দ। ওই শোন- প্রস্তুত হও, প্রস্তুত হও, প্রস্তুত হও।

নায়েব। (নেপথ্যে) তোমাকেও বিশেষ গ্রয়ৌজন।

বঙ্গে রাঠোর

নন্দ। বাচ্ছি_যাচ্ছি। যা বলবার বলনুম বড়বৌ। এরপর

বলতে আসবার বোধ হয় সময় পাব ন! [ প্রস্থান।

ভুবনে। যা ভয় করনুষ তাই হ'ল! শেষকালে ছেলেটা চরিত্র- হীন হয়ে পড়ল! হয়ে এমন বিপদ বাধালে যে, স্বামী ছেড়ে, তাকে ছেড়ে, ঘর ছেড়ে, আমাকে পালাতে ইল! বিপদ থেকে যদি বাবু নিস্তার .পান, তাহ'লে রঙ্গলালকে: তার প্রক্কৃত অবস্থা বুঝিয়ে দেব। আর নাঁ-আর না। মাতৃহীন শিশুকে শৃতিকার ঘর থেকে কুড়িয়ে মানুষ করেছি। নিজে বন্ধ্যাঁ-তাকেই গর্ভস্থ সন্তান মনে করেঃ মোহে, সত্যই ততার পরকান নষ্ট করেছি! আজ সেষে কার্ধ্য করেছে, কুলবধূ হয়ে আমি তার সে পণ্ড ব্যবহারের সমর্থন করতে পারি না! আর না--আর না? আর আমি তার "সঙ্গে মাত৷ পুত্রের গতানে৷ সম্পর্ক রাখব না। বলতে বুকটো! কাপবে-- তা কাপুক। কথা মুখদে বার করতে বারংবার বাধা পড়বে, তা পড়ুক। আমি এইবার দেখা গেলেই তাকে তার প্রকৃত অবস্থা

বুঝিয়ে দেব। 'ঝিয়ের প্রবেশ বি। ওমা! মা! কোথায় তুমি? ভুবনে। কি হয়েছে--কি হয়েছে? বি। ছোটবাবু কাকে ধ'রে বাড়ীতে আনছে গো! ভুবনে। কোথাক়--কোথায়? বি। ওই যেখিড়কীর বাগানের ছিতর দিয়ে গে!। ভুবনে। চুপ চুপ--গোল করিসনি !

বঙ্গে রাঠোর | ৩৩.

ঝি। টিপি টিপি--নখের উপর ভর দিয়ে-_

ভুবনে কোথায় দেখিয়ে দিবি চল্‌। , ঝি। তুমি যাও মা) তুমি যাও। দেখে আমার গ! কেমন কেমন করছে! ওমা! কি ঘেরা! ছুঁড়ী আবার ছোটবাবুর কাধে তর দিয়ে আয়ছে।

ভুবনে। আমর্! চেঁচিয়ে মরছ' কেন?

ঝি। তুমি নিজে গিয়ে দেখে এস বাপু! পিঠে বিহ্ুনি-করা চুল+ মাথা খালি, পায়ে জুতো, চোক ঢুল ঢুল করছে, ট'লে ট'লে পড়ছে! তুমি দেখে এস বাপু! আমার দেখে লজ্জা করছে

ভুবনে বেশ, তোকে যেতে হবে না। দরজা বন্ধক'রে তুই ঘরে থাক-_আমি না! ডাকলে এখন আর কাউকেও দোর খুলে দিসনি। কর্তাবাবু এলেও না। খবরদার 'কেউ যেন না জানতে পারে। তাইত! বোকাটা আজ মান, সন্ত্রম, ধর্ম সব নষ্ট করলে নাকি? '

[ উভয়ের প্রস্থান।

চ্তুথ” দৃশ্য খিড়কীর বাগান রঙ্গলাল কলিবেগম

রঙ্গ। এইখানে এই গাছের তলায় কিছুক্ষণের জন্য আপনাকে বিশ্রাম করতে হবে। গৌপাঁলজী করেন, এইখান থেকেই আপনার এই নিদারুণ কষ্টের অবসানঞহয়! আপনার অন্থরোধে এই পথটা ঠাটিয়ে এনে বড়ই নির্ব-দ্ধিতার কাজ করেছি।

বঙ্গে রাঠোর

কলি। আপনার কোনও অপরাধ নেই। আমি যে গথ হাটতে এত অপারগ, তা আমি নিজেই জানতুম ন]। ৃঁ

রঙ্গ। যাহবার হয়ে গেছে-_এইবারে মার সঙ্গে দেখা। মার 'অন্ুমতি পেলেই, আপনাকে ' বাড়ীটুকু পর্য্যন্ত আর একবার হাটতে হবে। সেই শেষ। আসতে আসতে গধে আপনাকে সমস্তই বলেছি। দয়াময়ী মা আমার, আমার মুখে সমস্ত কথা শুনে যদি আপনাকে গৃহে স্থান দেন, তবেই আমি নিজেকে ভাগ্যবান মনে করব। যদ্দিন। দেন, আপনি যেন সে জন্য ক্ষুব্ধ হবেন নাঁ।

কলি। ক্ষু্ধ হবনা। তবে বুঝব) তা হলে আমি একাই ভাগ্যহীনা।

বঙ্গ। তখনই আপনাকে দেই দরের বরে ফিরতে হবে

কলি। তখনই ফিরব

রঙ্গ। েইথানেই থাকতে হবে। কলি। আপনি ফিরে না আসা পর্য্স্ত আমি অন্য কোথাও 'যাব মা।

রঙ্গ। নানা_তাঁকেন? আপনার পিতার সংবাদ পেলে তখনি সেখানে চলে যাবেন।

কলি। সংবাদ কি, পিতা যদি জানতে পেরে আমাকে নিয়ে যাবার জন্য লোক পাঠান, তবু নামি যাবনা।

রঙ্গ না না সেকি বলছেন?

কলি। পিতা যদি নিজে আসেন তবু যাবন]। '. রুঙ্গ। আপনি গোল করছেন!

কলি। গোল আপনি করছেন--এতক্ষণ বেশ কথ! কইছিলেন। এইবারে মগ্ভ আবার আপনার তিন নিয়ে নাড়াচাড়া করছে।

বঙ্গে রাঁঠোর ৩৫ পিতা আমার সঙ্গে সেই পর্ণকুটীরে পে আপনার ফিরে আসবার অপেক্ষা করবেন। |

' বঙ্গ। কথা বলতে নেই।

কলি। আপনি'বলাচ্ছেন যে। অথচ বাক্যক্ষ,রণে আর আমার শক্তি নাই। আপনি মায়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করুন ,

[ কলির কুণ্রাস্তরালে গমন রঙ্গলালের প্রস্থান ভূবনেশ্বরীর প্রবেশ

ভুবনে। কই- কোথাও দেখতে পেনুম না? বোকা মূর্খটা তাকে নিয়ে গায়ের ভিতর ঢুকল" নাকি? আরত আমি থাকতে পারিনা! তিনি তখনই আমাকে যাবার জন্থ প্রস্তত হ'তে বলে- ছিলেন। এখনি এখনি ক'রে বোকাটাকে খুঁজতে যে রাত হয়ে গেল? ওদিকে যে কি কাণ্ড হচ্ছে তা বুঝতে পারছি না! ন৷ আর ন|। স্বামীর কাছে তিরস্কার, লোকের কাছে গঞ্জনা--এ সব একদিনও কাণে তুলিনি। কিন্তু একি? একূপ পশুর কার্য্যের প্রশ্রয় দিলে আমার যে ধর্ম যায়! মায়ের মমতায় সন্তানের চরিত্র-হানি : এক কথা, আর আমার মমতায় আার এক কথা। মমতা? কিসের মমতা? নিজের পেটে ছেলে হ'ল না €৫গাপাল আমাকে পুত্র-ন্নেহের অধিকারী করেন নি-_তবে কেন তাকে মমতা দেখিয়ে নিজের মান; সন্ত্রম, ধর্ম সব জলাঞ্জলি দিতে বসেছি ? আর না--আর না। একবার তাকে দেখতে পেলে হয়!

রস্কলালের প্রবেশ

রঙ্গ মা! ২.

ভুবনে। এই যে--এই যে&-রঙগণাল ; তুয়ি,এসেছ?

রঙ্গ। এসেছি। গোল ক'রনা *'! :-.

৩৬ বঙ্গে রাঠোর

ভুবনে। রঙ্গলাল! আর তুমি আমাকে মা! বলনা

বঙ্গ। মাবলব না?

ভুবনে। না। আমি তোমাব ভ্রাতৃজায়া। শৈশব থেকে তোমাকে মান্য করেছি, এই যা। মনে ছুঃখ কারন।।

রঙ্গ। কিবল্পে? (হাশ্ত) আর একবার বল।

ভূবনে। ছুঃখ ক'রনা রঙ্গলাল !

রঙ্গ দুঃখ? তারি আনন্দ কেন! আনন্দ--আর একবার বল।

ভুবনে। যতর্দিন তুমি শিশু ছিন্বে, ততদিন তোমার ম! বল সেকেছিল। এখন তুমি যুবাপুরুষ। আঁর দুদিন পরেই তুমি বিবাহিত হবে। তোমার বধূ হবে আমার জা। সে আমাকে যখন দিদি বলে ডাকবে, তোমার মত মা বলতে পারবে না; তখন আগে হাতেই তোমাকে সাবধান করে দিচ্ছি। এখন থেকে আমার সঙ্গে তোম[র সম্পর্কান্থুযায়ী আলাপ করবার সময় এসেছে বঙ্গ হছ'! বুঝতে পেরেছি। কথ! আজ আমাকে কেন বল্লে তাও বুঝতে পেরেছি তবে কথার জবাব দেবার আমার সময় নেই।

ভুবনে। তারপর? তুমি কি ক'রে